Home আন্তর্জাতিক
Category:

আন্তর্জাতিক

ঢাকা: চীনের সাবেক প্রেসিডেন্ট জিয়াং জেমিন আর নেই। বুধবার সাংহাইয়ের স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় মারা গেছেন তিনি। এ তথ্য দেয়া হয়েছে রাষ্ট্রীয় মিডিয়ায়। বলা হয়েছে, তার বয়স হয়েছিল ৯৬ বছর। তিয়ানানমেন স্কোয়ার বিক্ষোভের পর তিনি ক্ষমতায় এসেছিলেন। তার সময়কালে চীন ব্যাপকভাবে উন্মুক্ত করা হয়। ফলে দেশটি দ্রুতগতিতে প্রবৃদ্ধির দিকে এগিয়ে যায়। তিয়ানানমেন বিক্ষোভের পর সবচেয়ে মারাত্মক বিক্ষোভ যখন হচ্ছে চীনে, তখনই তিনি মারা গেলেন। চাইনিজ কমিউনিস্ট পার্টি বিবৃতিতে বলেছে, জিয়াং জেমিন মারা গেছেন লিউকেমিয়া এবং নানা রকম অঙ্গ অকেজো হয়ে যাওয়ায়।

গ্লোবাল টাইমস, সিনহুয়া বার্তা সংস্থা সহ রাষ্ট্রীয় মিডিয়াগুলো তার সম্মানে তাদের ওয়েবসাইটকে সাদা-কালোতে উপস্থাপন করেছে। রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন সিসিটিভি প্রয়াত এই নেতার ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করেছে।

এতে বলা হয়েছে, ১৯৮৯ সালের বসন্ত ও গ্রীষ্মে চীনের রাজনৈতিক পরিস্থিতি টালমাটাল হয়ে উঠেছিল। সে সময় কমরেড জিয়াং জেমিন অসন্তোষের বিরুদ্ধে পার্টির সেন্ট্রাল কমিটিতে যথাযথ সিদ্ধান্ত দিয়ে তা বাস্তবায়নে ভূমিকা রেখেছিলেন। তিনি সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার পক্ষে ছিলেন এবং জনগণের মৌলিক স্বার্থের একজন রক্ষক ছিলেন। সূত্র: অনলাইন বিবিসি

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: নতুন গাড়ি ফিরিয়ে দিলেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিম। এমনকি নিজেদের সুবিধার জন্য সরকারি টাকা ব্যবহার করবেন না বলেও সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

মালয়েশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রীর জন্য কেনা মার্সিডিজ বেঞ্জ এস৬০০ লিমুজিন গাড়ি ব্যবহার করতে অস্বীকার করেছেন তিনি। এর পরিবর্তে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে থাকা যেকোনো একটি গাড়ি আনোয়ার ইব্রাহিম ব্যবহার করবেন বলে জানিয়েছেন।

রোববার এক ফেসবুক পোস্টে আনোয়ার ইব্রাহিম জানিয়েছেন, (শনিবার) আমি একটি মার্সিডিজ এস৬০০ গাড়ি ব্যবহার করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছি, যেটি আমি অফিসে আসার আগে কেনা হয়েছে।

মালয়েশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি চাই না আমার ওপর নতুন কোনো খরচ হোক। শনিবার রাতে সেলাঙ্গোর একটি মসজিদে নামাজের পর একই ধরনের মন্তব্য করেন তিনি।

আনোয়ার ইব্রাহিম বলেন, তার ব্যবহারের জন্য কোনো নতুন সরকারি গাড়ি কেনা হবে না এবং তার অফিস কোনো নতুন অপ্রয়োজনীয় আসবাবপত্র কিনবে না। পাবলিক ফান্ডের অপচয়ের বিরুদ্ধে এটি একটি নতুন সংস্কৃতির অংশ; যা সবার অনুশীলন করা উচিত।

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, শর্ত হলো প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে নতুন কোনো কেনাকাটা করা যাবে না।

সাধারণ মানুষের উদ্দেশ্যে আনোয়ার ইব্রাহিম বলেন, ১০০, ১০০০ বা ১০,০০০ মালয়েশিয়ান রিঙ্গিত- আপনি কতটুকু সংরক্ষণ করতে পারেন তা নিয়ে ভাবুন।

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর মালয়েশিয়ার মসনদে বসেছেন আনোয়ার ইব্রাহিম। তিনি বলেন, আমি বেতন না নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে শুরু করেছিলাম। আরও যেটা গুরুত্বপূর্ণ তা হলো আমাদের যে তহবিল আছে তা নষ্ট না করা।

সরকারি কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, এটি সব বিভাগের কর্মকর্তাদের মনে রাখার বার্তা যে, বর্তমান পরিস্থিতিতে আমাদের একটি নতুন সংস্কৃতি শুরু করা উচিত। নিজেদের সুবিধার জন্য সরকারি টাকা ব্যবহার করবেন না।

নির্বাচনি প্রচারে ৭৫ বছর বয়সি আনোয়ার ইব্রাহিম ঘোষণা দিয়েছিলেন যে, তিনি সাধারণ নির্বাচনে জয়ী হলে প্রধানমন্ত্রীর বেতন নেবেন না।

এরই মধ্যে আনোয়ার ইব্রাহিম জানিয়েছেন, তার মন্ত্রিসভার আকার ছোট হবে। যদিও এখনো তিনি মন্ত্রিসভা ঘোষণা করেননি। যুগান্তর

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: অবশেষে আনোয়ার ইব্রাহীম মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন। আজ ২৪ নভেম্বর বৃহস্পতিবার বিকেলে  রাজা  সুলতার আবদুল্লাহ সুলতান শাহর উপস্থিতিতে রাজ দরবারে মালয়েশিয়ার ১০ম প্রধানমন্ত্রী হিসেব শপথ গ্রহন করেন তিনি।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

 মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যের চেসাপিক শহরের এক ওয়ালমার্ট স্টোরে বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটে। এই হামলায় নিহত হয় ১০ জন এবং আহত হয় আরও বেশ কয়েকজন। বিবিসি

রিপোর্টাদের তথ্য অনুযায়ী, বন্দুকধারী ছিলেন ওই স্টোরেরই ম্যানেজার। তিনি বন্দুক হামলার পর নিজেই নিজেকে গুলিবিদ্ধ করে আত্মহত্যা করেন। চেসাপিক সিটি টুইটারের মাধ্যমে জানিয়েছে, ওয়ালমার্টে গোলাগুলি ও প্রাণহানির ঘটনা নিশ্চিত করেছে চেসাপিক পুলিশ।

কিছু স্থানীয় মিডিয়া রিপোর্টার জানিয়েছে, এখনও পর্যন্ত নিহত ও আহতের সংখ্যা স্পষ্টভাবে জানা যায়নি। তবে এই ঘটনায় ১০ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়নি বলে জানিয়েছেন তারা।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: ইন্দোনেশিয়ার জাভা দ্বীপে ভয়াবহ ভূমিকম্পে কমপক্ষে ৪৪ জন নিহত হয়েছেন। এতে দুমড়ে মুচড়ে গেছে ওই দ্বীপটি। বহু ঘরবাড়ি ধসে গেছে। ফলে হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের জিওলজিক্যাল সার্ভে বলেছে, সোমবার ৫.৬ মাত্রার ভূমিকম্পের উৎস ছিল পশ্চিম জাভার সিয়ানজুর অঞ্চলে ১০ কিলোমিটার গভীরে। সেখান থেকে অধিবাসীদের পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে রাজধানী জাকার্তার দিকে। এসব মানুষ রাস্তা ধরে নিরাপত্তার জন্য শুধু দৌড়াচ্ছিলেন। এ খবর দিয়েছে অনলাইন আল জাজিরা। ভূমিকম্পে ধ্বংস হয়েছে একটি ইসলামিক বোর্ডিং স্কুল, একটি হাসপাতাল, সরকারি বিভিন্ন স্থাপনাও। সিয়ানজুরের সরকারি কর্মকর্তা হারমান শুহেরম্যান মেট্রো টিভিকে বলেছেন, নিহত হয়েছেন কমপক্ষে ২০ জন।

আহত হয়েছেন তিন শতাধিক। তিনি বলেন, নিহতের এই সংখ্যা সিয়ানজুরের মাত্র একটি হাসপাতালের। সিয়ানজুরে আছে চারটি হাসপাতাল। ফলে নিহতের সংখ্যা বাড়বে। ওই শহরের স্থানীয় প্রশাসনের মুখপাত্র এডাম বলেন, কয়েক ডজন মানুষ মারা গেছেন। তার ভাষায়, শত শত এমন কি হাজার হাজার বাড়ি ধ্বংস হয়েছে। এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা ৪৪। মেট্রো টিভির ফুটেজে দেখা যাচ্ছে সিয়ানজুরের অনেক ভবন মাটির সঙ্গে মিশে গেছে। উদ্বিগ্ন অধিবাসীরা বাইরে দাঁড়িয়ে শুধু ধ্বংসলীলা দেখছেন। ভূমিকম্প শক্তিশালীভাবে আঘাত করে গ্রেটার জাকার্তা এলাকায়। সেখানকার অনেক হাই-রাইজ ভবনে দোলা দিয়েছে। বহু নাগরিককে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। দক্ষিণ জাকার্তার একজন চাকরিজীবী ভিদি প্রিমাধানিয়া বলেন, কম্পন ছিল খুবই শাক্তিশালী। আমাদের অফিস ৯ম তলায়। সহকর্মীদের সঙ্গে আমিও ইমার্জেন্সি সিঁড়ি দিয়ে নিচে নেমে এসেছি।
0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: আলো জ্বলে ওঠল। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরু হয়ে গেল। কাতারে বিশ্বকাপ আয়োজন নিয়ে অনেক বিতর্ক থাকলেও, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মাতিয়ে দিলো তারা। দেয়া হলো ঐক্যের বার্তা, দেয়া হলো সাম্যের বার্তা। ফুটবলই যে দুনিয়াকে এক করতে পারে, সেই বার্তা বারে বারে উঠে এলো।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর মাঠে গড়ায় কাতারের ফুটবল বিশ্বকাপ। স্বাগতিক কাতার আর ইকুয়েডরের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে শুরু হয় বিশ্বকাপ আসর।

আল বায়াত স্টেডিয়ামে আয়োজিত হয়েছে বর্ণিল এ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। সেখানে শুরুতেই পারফর্ম করেছেন কাতারের আঞ্চলিক শিল্পীরা। নাচ-গান এবং ভিজুয়াল প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে তারা তুলে ধরতে চেয়েছেন উপসাগরীয় দেশটির সংস্কৃতি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরুর অনেক আগে থেকেই ভিড় জমতে শুরু করেছিল আল বায়াত স্টেডিয়ামের বাইরে। হলুদ জার্সি এবং পতাকা নিয়ে সোল্লাসে স্টেডিয়ামের দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন ইকুয়েডরের সমর্থকরা। অন্য প্রান্ত থেকে এগিয়ে আসছিলেন সাদা এবং সবুজ জার্সি পরিহিত কাতার সমর্থকরা। নাচগান, ঢাকঢোলের শব্দের মাধ্যমে পরিষ্কার হয়ে যায়, বিশ্বকাপ শুরু হতে আর দেরি নেই।

নির্ধারিত সময়ের কিছুটা পরেই শুরু হল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। প্রথমেই দেখা যায় কাতারের শাসক শেখ মহম্মদ বিন রশিদ আল-মাখতুম। প্রথমে গানের অনুষ্ঠান হয়। তার পরেই বিশ্বকাপে ঐক্যের বার্তা শোনাতে শোনাতে হাজির হন হলিউডি অভিনেতা মর্গ্যান ফ্রিম্যান। তার সাথে মঞ্চে প্রবেশ করে কাতারের বিশেষভাবে সক্ষম ঘানেম আল-মুফতাহ।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হতে চলেছে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচন। এতে কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের ৪৩৫ আসন এবং উচ্চকক্ষ সিনেটের ৩৫ আসনের জন্য ভোট দেবেন আমেরিকানরা। প্রেসিডেন্টের মেয়াদ যখন একেবারে অর্ধেক হয়ে আসে তখনই দেশটিতে এই মধ্যবর্তী নির্বাচন আয়োজিত হয়।

এই নির্বাচনেই নির্ধারিত হয়, ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট আগামী দুই বছর কতখানি ক্ষমতাধারী থাকবেন। নিম্নকক্ষ ও উচ্চকক্ষের নিয়ন্ত্রণ হারালে প্রেসিডেন্ট ‘লেম-ডাকে’ পরিণত হন। প্রেসিডেন্ট বাইডেনের ডেমোক্রেট দল যথেষ্ট ভোট না পেলে কংগ্রেসের দুই কক্ষেরই পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ হারাতে পারে। সেক্ষেত্রে উভয় কক্ষই বিরোধী রিপাবলিকান দলের নিয়ন্ত্রণে চলে যাওয়ার ঝুঁকি আছে। তেমন হলে প্রেসিডেন্ট বাইডেনের জন্য কোনও কাজ করা খুব কঠিন হয়ে পড়বে। বিশেষ করে নতুন কোনও আইন সহজে পাস করতে গেলে বাইডেনের জন্য কংগ্রেসের দুই কক্ষেরই নিয়ন্ত্রণ পাওয়া জরুরি।

এখন পর্যন্ত মধ্যবর্তী নির্বাচনে রিপাবলিকান এবং ডেমোক্রেট দলের সমর্থন প্রায় সমানই মনে হচ্ছে। যদিও একেবারে শেষ দিকের জরিপগুলো বলছে, রিপাবলিকানরা হয়ত পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ এবং উচ্চকক্ষের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারবে। ২০১৮ সালে তারা ডেমোক্রেটদের কাছে এর নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছিল।

ফাইভথার্টিএইট-এর জরিপ বলছে, হাউজ অব রিপ্রেজেন্টিভে রিপাবলিকানরা ২১৫ থেকে ২৪৮ আসন পাবে। এই সংস্থাটি তার নির্বাচন নিয়ে জরিপের জন্য পরিচিত।

তারা বলছে, ডেমোক্রেটদের প্রধান টার্গেট রিপাবলিকানদের কাছ থেকে পেনসিলভানিয়া নিয়ে নেয়া। অপরদিকে রিপাবলিকানরা ডেমোক্রেটদের থেকে জর্জিয়া ও নেভাডা নিয়ে নেয়ার লক্ষ্য হাতে নিয়েছে। যদি ডেমোক্রেটরা সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায় তাহলে আগামী দুই বছর প্রেসিডেন্টের পক্ষে তেমন কোনো আইনই পাশ করা সম্ভব হবে না। ভোটাররা ৫০ প্রদেশের ৩৬টিতে গভর্নর নির্বাচিত করতেও ভোট দেবেন। এরমধ্যে ২০টিতে ক্ষমতায় আছে রিপাবলিকানরা এবং ১৬টিতে ক্ষমতায় আছে ডেমোক্রেটরা। এই গভর্নর নির্বাচনের প্রভাব পড়বে ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনেও।
ওয়াশিংটনের পিউ রিসার্চ সেন্টার জানিয়েছে, এবারের নির্বাচনে ভোটারদের কাছে সবথেকে গুরুত্ব পাচ্ছে অর্থনীতি। ৭৯ শতাংশ ভোটারই বলেছেন, এবার তারা কাকে ভোট দেবে তা নির্ধারণে অর্থনীতিকেই প্রাধান্য দিচ্ছেন তারা। সর্বশেষ মাসগুলোতে অর্থনীতি নিয়ে মার্কিনিদের চিন্তাভাবনা ছিল বেশ নেতিবাচক। রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে পশ্চিমা দেশগুলোর নিজের অর্থনীতিই চাপে পড়েছে। জ্বালানী এবং খাদ্যের দাম বৃদ্ধি এবং সার্বিক মূল্যস্ফীতির বিষয়টিকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখছেন মার্কিন ভোটাররা।

তবে অনেকের কাছে বিশ্বে গণতন্ত্রের ভবিষ্যতও একটি বিবেচ্য বিষয়। আবার ৬০ শতাংশ তার ভোটের জন্য শিক্ষা, স্বাস্থ্য, জ্বালানী নীতি এবং সহিংস অপরাধের বিষয়টিকে গুরুত্ব দিচ্ছেন। অস্ত্র আইন ও গর্ভপাতও গুরুত্ব পাচ্ছে ৫০ শতাংশের কাছে। ডেমোক্রেট এবং রিপাবলিকান উভয় দলের জন্যই ভোট আদায়ে পেনসিলভেনিয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ প্রদেশ হয়ে উঠেছে। এ প্রদেশে সিনেট নির্বাচনে খুব কম ব্যবধানে মুখোমুখি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন দুই প্রার্থী- ডেমোক্র্যাট জন ফেটারম্যান এবং রিপাবলিকান মেহমেত ওজ। তাদেরকে জিতিয়ে আনতেই সেখানে প্রচার চালাতে মাঠে নেমেছেন স্ব স্ব দলের তিন নেতা- ট্রাম্প, ওবামা এবং বাইডেন।

যদিও ট্রাম্পকে দেখা গেছে নিজের রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নিয়েও কথা বলতে। পেনসিলভেনিয়াতে তিনি জন সমাবেশে সমর্থকদের জানান, ২০২৪ সালের নির্বাচনে ‘খুব সম্ভবত’ তিনি আবারও প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করবেন।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খান রবিবার তার ‘লংমার্চ’ স্থগিত করেছেন। এক নারী পাকিস্তানি সাংবাদিক সাদাফ নাঈম, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার পরে তার কন্টেইনারের নীচে পিষ্ট হয়ে মারা যাওয়ার পরে এই সিদ্ধান্ত নেন ইমরান খান।

লংমার্চটি যখন লাহোর জিটি রোড থেকে কামোকে যাচ্ছিলো তখন একটি বেসরকারি নিউজ চ্যানেলে কর্মরত সাংবাদিক নাঈম মারা যান। তার সমর্থকদের সাথে কথা বলতে গিয়ে খান বলেন, মিছিলটি গুজরানওয়ালার কামোকে অভিমুখে যাওয়ার কথা ছিল। তবে, দুঃখজনক ঘটনার কারণে আমরা অবিলম্বে পদযাত্রা বন্ধ করলাম।

খান নিহতের পরিবারের প্রতি তার সমবেদনা জানিয়ে বলেছেন যে, তিনি নাঈমের বিদেহী আত্মার জন্য প্রার্থনা করবেন। খান টুইট করে লিখেছেন- ‘আমাদের আজকের মার্চে চ্যানেল ৫-এর রিপোর্টার সাদাফ নাঈমের সঙ্গে যে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটেছে তাতে আমার গভীরভাবে শোকাহত। আমার দুঃখ প্রকাশ করার ভাষা নেই। এই দুঃখজনক সময়ে পরিবারের প্রতি আমার প্রার্থনা ও সমবেদনা রইলো। আমরা আজকের জন্য আমাদের মার্চ বাতিল করেছি’। সোমবার চতুর্থ দিনে কমোকে থেকে লংমার্চ শুরু হবে। এর আগে তৃতীয় দিন শেষে গুজরানওয়ালা পৌঁছানোর পরিকল্পনা করা হয়েছিল।

দুনিয়া টিভি জানিয়েছে , সাদাফ তার টিভি চ্যানেলের জন্য খানের সাক্ষাৎকার নেয়ার চেষ্টা করছিলেন। প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরীফ সাংবাদিকের মৃত্যুতে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বলেছেন যে, তিনি এই প্রতিবেদকের মৃত্যুতে গভীরভাবে শোকাহত। তিনি টুইটে লিখেছেন, ‘লংমার্চের কন্টেইনার থেকে পড়ে রিপোর্টার সাদাফ নাঈমের মৃত্যুতে আমি গভীরভাবে শোকাহত। এই মর্মান্তিক ঘটনা আমি মেনে নিতে পারছি না। পরিবারের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা রইলো। সাদাফ নাঈম একজন গতিশীল ও পরিশ্রমী রিপোর্টার ছিলেন।’

তথ্যমন্ত্রী মরিয়ম আওরঙ্গজেব সাদাফের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন এবং প্রশ্ন তুলেছেন  যে কীভাবে খানের ব্যবহৃত কনটেইনারবাহী ট্রাকটি প্রতিবেদককে চাপা দিল?  তিনি অভিযোগ তুলে বলেছেন, ‘আমি  নাঈমকে ব্যক্তিগতভাবে চিনি। তিনি একজন কঠোর পরিশ্রমী সাংবাদিক ছিলেন। ইমরান খানের সাক্ষাৎকার নেওয়ার সময় তাকে হত্যা করা হয়েছে, আমি  হতবাক।’

পিএমএল-এন সহ-সভাপতি মরিয়ম নওয়াজও ঘটনার নিন্দা করেছেন এবং সাদাফ ও তার পরিবারের জন্য প্রার্থনা করেছেন। রাষ্ট্রপতি আরিফ আলভিও মৃত সাংবাদিকের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

সূত্র : হিন্দুস্থান টাইমস/মানব জমিন

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সোল শহরে হ্যালোউইন উৎসব উদযাপনের জন্য সমবেত হওয়া বিপুল জনতার ভিড়ে চাপা পড়ে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অন্তত ১৫৩ জন নিহত এবং আরো ১৫০ জন আহত হয়েছে। বিবিসি/ আল-জাজিরা

মৃতদের অধিকাংশের বয়স কুড়ির কোঠায় বলে জানাচ্ছেন স্থানীয় কর্মকর্তারা। মৃতদের মধ্যে তিনজন চীনা নাগরিকসহ ১৯ জন বিদেশি রয়েছেন।

সোলের পুলিশ বলছে এখনো পর্যন্ত ৩৫৫ জনের মতো নিখোঁজ রয়েছেন বলে তাদের কাছে তথ্য রয়েছে।

বেঁচে যাওয়া অনেকেই বলছেন, বেশি মানুষ সরু গলিতে জড়ো হয়েছিলেন, একে অপরের গায়ে লেপ্টে ছিল মানুষজন। তারা একসময় আর নি:শ্বাস নিতে পারছিলেন না।

ভিড় সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছিল ঘটনাস্থলে উপস্থিত পুলিশ।

করোনাভাইরাস মহামারি শুরুর পর মাস্ক পরা ও সামাজিক দূরত্বের বিধিনিষেধ উঠে যাওয়ার পর দেশটিতে এটি ছিল উন্মুক্ত স্থানে প্রথম হ্যালোউইন অনুষ্ঠান।

ভিড়ে চাপা পড়ে আহত একজনকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
ভিড়ে চাপা পড়ে আহত একজনকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

শহরের একজন চিকিৎসক, যিনি ঘটনার সময় চিকিৎসা সহায়তা দিয়েছিলেন তিনি বলছেন, মৃতের সংখ্যা এত দ্রুত বাড়ছিল যে সেখানে চিকিৎসা সহায়তা দিতে আসা কর্মীরা সামাল দিতে পারছিলেন না।

স্থানীয় একটি টেলিভিশন চ্যানেলে তিনি বলেছেন, “প্রথমে আমি রাস্তায় পড়ে থাকা দুইজনকে প্রাথমিক সহায়তা দিয়েছিলাম। কিন্তু হঠাৎ সংখ্যা মারাত্মকভাবে বেড়ে গেল। ভাষায় বুঝিয়ে বলা খুব কঠিন। এই ঘটনার শিকার এতগুলো মুখ পুরো ফ্যাকাসে, আমি তাদের পালস পাচ্ছিলাম না, তাদের অনেকের নাক রক্তাক্ত ছিল।”

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট ইউন সুক ইওল দেশটিতে জাতীয় শোক ঘোষণা করেছেন।

তিনি বলেছেন, “আমার হৃদয় ভারাক্রান্ত। এই শোক কাটিয়ে ওঠা কঠিন।”

“মানুষের জীবন ও তার নিরাপত্তার জন্য নিজের দায়” বোধ করছেন বলে বর্ণনা করেছেন তিনি।

এই সরু গলিতে ভিড়ে চাপা পড়ে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।
এই সরু গলিতে ভিড়ে চাপা পড়ে মৃত্যুর ঘটনা তদন্ত করা হচ্ছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোসহ বিশ্ব নেতারা এই ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন।

সোল শহরের একটি জনপ্রিয় নৈশ বিনোদন এলাকা ইতেওন-এ হ্যালোউইন উদযাপনের জন্য প্রায় এক লক্ষ লোক সমবেত হয়েছিল বলে খবরে বলা হয়।

এক খবরে বলা হয়, স্থানীয় সময় রাত দশটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। রয়টার্স বার্তা সংস্থাকে একজন দমকল কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ওই এলাকার একটি পাহাড়ের ওপরদিকে থাকা লোকেরা নিচে পড়ে গেলে একটি সরু গলিতে থাকা বিপুল সংখ্যক মানুষের মধ্যে হুড়োহুড়ির সৃষ্টি হয়।

তবে কর্তৃপক্ষ বলছে, ঠিক কী কারণে এই ঘটনা ঘটলো তা তারা এখনো জানার চেষ্টা করছে। ঘটনা তদন্তে কাজ চলছে।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী বিবিসিকে বলেছেন, ওই এলাকায় হাজার হাজার লোকের ভিড় জমে গিয়েছিল এবং ভিড়ে চাপা পড়া থেকে বাঁচতে তারা বড় রাস্তায় বেরিয়ে এসেছিলেন।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যবসায়ী ইলন মাস্ক অনেক টানা-হেঁচড়ার পর শেষ পর্যন্ত ৪৪০০ কোটি ডলারে সোশ্যাল মিডিয়া কোম্পানি টুইটার কিনে নিলেন।

মালিকানা পাওয়ার পর মি মাস্ক টুইট করেন “দি বার্ড ইজ ফ্রি (পাখি এখন মুক্ত)।” টুইটারের প্রতীক একটি পাখি।

কোম্পানির মালিকানা হাতে পাওয়ার সাথে সাথেই তিনি টুইটারের ভারতীয় বংশোদ্ভূত প্রধান নির্বাহী পরাগ আগরওয়াল এবং ঊর্ধ্বতন বেশ কজন কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করেছেন বলে খবর বেরিয়েছে।

ইলন মাস্ক নিজেই এখন প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী পদটি নেবেন বলে মার্কিন গণমাধ্যমের বিভিন্ন খবরে বলা হচ্ছে।

মার্কিন মিডিয়ার খবর অনুযায়ী, টুইটারের প্রধান অর্থ কর্মকর্তা নেড সেগাল এবং আইন ও নীতি বিষয়ক প্রধান বিজয়া গাডডেও বিদায় নিয়েছেন।

রয়টর্স বার্তা সংস্থা খবর দিয়েছে, মি. আগরওয়াল এবং আরও দুজন সিনিয়র কর্মকর্তাকে নিরাপত্তা রক্ষী দিয়ে সানফ্রানসিসকোতে টুইটারের সদর দপ্তরের অফিস ভবনের বাইরে বের করে দেয়া হয়।

ওদিকে, নভেম্বর মাস থেকে যিনি টুইটারের চেয়ারম্যান পদে ছিলেন, সেই ব্রেট টেইলর তার লিংকডইন প্রোফাইল আপডেটে ইঙ্গিত দিয়েছেন যে তিনি আর টুইটারের ঐ পদে নেই।

টুইটার কেনার আগে মাসের পর মাস ধরে আইনি টানা-হেঁচড়া চলেছে। কিন্তু এখন প্রশ্ন উঠছে, ইলন মাস্ক অত্যন্ত প্রভাবশালী এই সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মকে কিভাবে চালাবেন।

মি. মাস্ক, যিনি “শতভাগ বাক স্বাধীনতার” সমর্থক বলে নিজেকে তুলে ধরেন, টুইটারের ব্যবস্থাপনা এবং মডারেশন বা মিতাচার নীতির সমালোচক ছিলেন।

ক্রয়ের শর্ত নিয়েও সাবেক মালিক পক্ষের সাথে ইলন মাস্কের অনেক বিরোধ হয়েছে। তার অভিযোগ ছিল টুইটারের ব্যবহারকারীর প্রকৃত সংখ্যা তাকে দেওয়া হয়নি।

তিনি এও বলেছেন অনেক যেসব ব্যবহারকারীকে টুইটার নিষিদ্ধ করেছে তাদেরকে তিনি ফিরিয়ে আনবেন।

ধারণা করা হচ্ছে, সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, যাকে ২০২১ সালে জানুয়ারিতে ক্যাপিটল হিল দাঙ্গার পর নিষিদ্ধ করা হয়েছিল, তিনিও টুইটারে ফিরে আসতে পারেন। মি. মাস্ক মনে করেন মি. ট্রাম্পকে এভাবে নিষিদ্ধ করা “বোকামি” হয়েছে।

কিছু কিছু মিডিয়া রিপোর্টে বলা হচ্ছে, শুধু সিনিয়র নির্বাহীরাই নয়, টুইটার থেকে প্রচুর কর্মী ছাঁটাই হতে পারে। এমনও গুজব উঠেছে ৭৫ শতাংশ কর্মীরই চাকরি চলে যেতে পারে।

তবে টুইটার এবং ইলন মাস্কের আরেক কোম্পানি টেসলার একজন বড় মাপের শেয়ারহোল্ডার বিবিসিকে বলেছেন টুইটারে প্রচুর মেধাবী কর্মী রয়েছে যাদেরকে বের করে দেওয়ার কোনও পরিকল্পনা রয়েছে বলে তিনি মনে করেন না।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail