বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে রাজধানীতে খেলাফত মজলিসের আলোচনা ও ইফতার মাহফিল

স্বাধীনতার ৫২ বছর অতিক্রম হলেও সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও ন্যায়বিচার আজও পূর্ণাঙ্গ প্রতিষ্ঠা লাভ করেনি – শায়খুল হাদীস যোবায়ের আহমদ চৌধুরী

ঢাকা, ২৬ মার্চ ২০২৩: খেলাফত মজলিসের আমীর শায়খুল হাদীস মাওলানা যোবায়ের আহমদ চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫২ বছর অতিক্রম হলেও আজও সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও ন্যায়বিচার পূর্ণাঙ্গ প্রতিষ্ঠা লাভ করেনি। মুক্তিযোদ্ধারা এই তিন মৌলিক চেতনাকে সামনে রেখে যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন। অনেক ত্যাগ তিতিক্ষার পর তাঁরা দেশকে স্বাধীন করেছিলেন। দেশে বারবার সরকার পরিবর্তিত হয়েছে কিন্তু মৌলিক মানবাধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য জনগণকে আজও লড়াই করতে হচ্ছে। রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানগুলোতে নৈতিকতা, দেশপ্রেমিক ও দায়িত্ববোধসম্পন্ন নেতৃত্বের সংকট প্রকট আকার ধারণ করেছে। সামাজিক মূল্যবোধের অবক্ষয়ের কারণে পারিবারিক ও সামাজিক অনাচার বৃদ্ধি পেয়েছে। একদিকে সিয়াম সাধনার মাস চলছে অন্যদিকে অসাধু ব্যবসায়ী ও সিন্ডিকেটগুলো মিলে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য অসহনীয় পর্যায়ে বৃদ্ধি করে রেখেছে। জ্বালানী তেল সহ বিদ্যুৎ ও গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি করে সরকার জনজীবনকে দুর্বিসহ করে তুলেছে। এ অবস্থা থেকে জাতি আজ মুক্তি চায়।

ইসলামী অনুশাসন মেনে চলা ও তা প্রতিষ্ঠার মধ্যেই জাতির সামগ্রিক মুক্তি ও কল্যাণ নিহিত। মাহে রমজান আমাদেরকে একমাস ধরে কঠোর সংযম, আত্মত্যাগ ও আল্লাহভীতির প্রশিক্ষণ দেয়। তাই আমাদেরকে এ মাসের পবিত্রতা রক্ষা করতে হবে। কুরআন নাযিলের এই মাসে মহাগ্রন্থ আল-কুরআনকে নিয়মিত চর্চা করতে হবে। কুরআনের সমাজ বিনির্মাণে আমাদেরকে সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করতে হবে। তিনি আজ ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে খেলাফত মজলিস ঢাকা মহানগরী দক্ষিণ শাখার উদ্যোগে আয়োজিত স্বাধীনতা দিবসের আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

ঢাকা মহানগরী দক্ষিণ সভাপতি অধ্যাপক মাওলানা আজিজুল হকের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসাইনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য মাওলানা জিয়াউল হক শামীম, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভাইস-চ্যান্সেলর ড. আবদুল লতিফ মাসুম, খেলাফত মজলিসের যুগ্ম-মহাসচিব এডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসাইন, ড. মোস্তাফিজুর রহমান ফয়সল, অধ্যাপক মোঃ আবদুল জলিল, ডক্টর সোসাইটি অব বাংলাদেশের সভাপতি ডা: আবদুল্লাহ খান, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিজানুর রহমান, বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্র মজলিসের কেন্দ্রীয় সভাপতি বিলাল আহমদ চৌধুরী, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ঢাকা মহানগরী দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, খেলাফত মজলিসের সহ-সাংগঠনিক মুফতি আবদুল হক আমিনী, খেলাফত আন্দোলন ঢাকা মহানগরী নায়েবে আমীর মাওলানা ফিরোজ আশরাফী, গণঅধিকার পরিষদ ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সদস্য সচিব আহমদ ইসমাইল, খেলাফত মজলিস নেতা ডা: আসাদুল্লাহ, এসএম আনোয়ারুল করীম, মনসুরুল আলম মনসুর, এবিএম শহীদুল ইসলাম, মাওলানা মিজানুর রহমান প্রমুখ।

দেশ, জাতি ও মুসলিম উম্মাহর কল্যাণ কামনায় দোয়া-মুনাজাত শেষে ইফতার গ্রহণের মধ্য দিয়ে মাহফিলের কার্যক্রম সমাপ্ত হয়।

আরো পড়ুন ...