রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪

সেদেশের সব সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ধর্মঘট সোমবার থেকে

বাংলাদেশে সর্বজনীন পেনশনের ‘প্রত্যয় স্কিমকে’ বৈষম্যমূলক আখ্যা দিয়ে তা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সেদেশের সব সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা।

ঐ দাবিতে আজ (রোববার) শিক্ষকরা পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন করেছেন। শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কর্মবিরতিতে কার্যত অচল হয়ে পড়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

দাবি আদায়ে আগামীকাল সোমবার থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য সর্বাত্মক কর্মবিরতিতে যাচ্ছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সব বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা। 

আজ দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবনের মূল ফটকে সংবাদ সম্মেলন করে এ ঘোষণা দিয়েছে সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর শিক্ষক সমিতির মোর্চা বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশন। 

সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর শিক্ষকদের দাবি তিনটি দাবি হলো, প্রত্যয় স্কিমের প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহার, সুপার গ্রেডে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের অন্তর্ভুক্তি এবং শিক্ষকদের জন্য স্বতন্ত্র বেতন স্কেল প্রবর্তন। আর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দাবি শুধু প্রত্যয় স্কিমের প্রজ্ঞাপন বাতিল। 

ঢাবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জিনাত হুদা জানিয়েছেন,  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ক্লাস বন্ধ থাকবে, সব পরীক্ষা বর্জন, অনুষদের ডিনরা তাঁদের কার্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষাসহ সংশ্লিষ্ট কার্যক্রম বন্ধ রাখবেন, কোনো বাছাই বোর্ডের সভা অনুষ্ঠিত হবে না, ইনস্টিটিউটের পরিচালকেরা ইনস্টিটিউটের কার্যালয়, ক্লাস ও পরীক্ষা বন্ধ রাখবেন, সন্ধ্যাকালীন ক্লাস বন্ধ থাকবে এবং প্রধান গ্রন্থাগারিক কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার বন্ধ রাখবেন।

এদিকে, শিক্ষাব্যবস্থায় অনিয়ম ও দুর্নীতির সমালোচনা করে জাতীয় সংসদে আজ বক্তব্য দিয়েছেন একাধিক সংসদ সদস্য। এর মধ্যে একজন সংসদ সদস্য বলেছেন, শিক্ষায় ব্যাপক দুর্নীতি, ভাষায় প্রকাশ করা যায় না।

আজ (রোববার) জাতীয় সংসদে ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেটে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের মঞ্জুরি দাবির বিরুদ্ধে ছাঁটাই প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে শিক্ষা খাতের বিভিন্ন দিকের সমালোচনা করেন একাধিক সংসদ সদস্য। রেডিও তেহরান

আরো পড়ুন ...