সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

ভারতে কৃষকদের আন্দোলনে গুলি, নিহত ১

ভারতে আন্দোলনরত কৃষকদের ‘দিল্লি চলো’ অভিযান চলাকালীন বুধবার পাঞ্জাব-হরিয়ানার সীমান্তে অবস্থিত খনৌরিতে এক কৃষকের মৃত্যুকে ঘিরে বিক্ষোভ আরো ঘনীভূত হয়েছে।

ন্যূনতম সহায়ক মূল্যে (এমএসপি) আইনি নিশ্চয়তা ও অন্যান্য দাবিতে আন্দোলনে থাকা কৃষকদের অভিযোগ, ২১ ফেব্রুয়ারি খনৌরি সীমান্তে পুলিশের গুলিতে নিহত হন শুভকরণ সিং নামে ওই কৃষক।

হরিয়ানা পুলিশ অবশ্য গুলি করার অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

আপাতত দু’দিন ‘দিল্লি চলো’ অভিযান স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কৃষক সংঠনের নেতারা।

পাটিয়ালা জেলার রাজিন্দরা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের চিকিৎসক হরনাম সিং রেখি মৃত্যুর কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে বলা যেতে পারে মাথার পেছনে গুলি লাগার কারণে হয়েছে। তবে চূড়ান্ত ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে বিষয়টা আরো জানা যাবে।’

তবে, ২২ বছর বয়সী শুভকরণ সিংকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছিল বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

অন্যদিকে, মৃত্যুর ঘটনা সামনে আসার পরই বুধবার বিকেলে হরিয়ানা পুলিশ বিবৃতি জারি করে বলেছে, ‘এ পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী, কোনো মৃত্যুর খবর আমরা জানি না। খনৌরি সীমান্তে দুই পুলিশ এবং এক আন্দোলনকারীর আহত হওয়ার খবর আমরা জানি।’

এদিকে, এই মৃত্যু নিয়ে কর্তৃপক্ষ পরস্পরের ওপর দোষ চাপাচ্ছে। পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত সিং মান অবশ্য ক্ষোভ দেখিছেন হরিয়ানা প্রশাসনের বিরুদ্ধে।

ময়নাতদন্তের রিপোর্টে পাওয়ার পর পাঞ্জাব সরকার এফআইআর দায়ের করবে এবং অভিযুক্ত পুলিশ অফিসারদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেবে।

এ ঘটনায় শোক প্রকাশ করে, সম্মিলিত কিষাণ মোর্চা অভিযোগ করেছে, ‘বর্তমান সঙ্কট এবং এক ব্যক্তির মৃত্যুর জন্য শুধুমাত্র মোদি সরকার দায়ী।’

কে এই শুভকরণ সিং?
পাঞ্জাবের ভাতিন্ডার বাসিন্দা শুভকরণ সিং কৃষক আন্দোলনে সামিল ছিলেন। তার নিকট আত্মীয় জসবীর সিংয়ের সাথে খনৌরি সীমানাতে আন্দোলনকারীদের ‘দিল্লি চলো’ অভিযানে অংশ নিয়েছিলেন তিনি।

ঘটনার সময় যে অংশে আন্দোলনকারী এবং পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষ হয়, তার থেকে প্রায় ৫০০ মিটার দূরে একটি ক্ষেতে দাঁড়িয়েছিলেন শুভকরণ সিং।

জসবীর সিং বলেন, ‘তারপর হঠাৎ একটা গুলি এসে লাগে আর মাটিতে লুটিয়ে পড়ে ও।’

শুভকরণ সিংয়ের কাকা বলজিৎ সিং বলেন, ‘আমি ওকে ১৯ ফেব্রুয়ারি ফোন করে বাড়ি ফিরে আসতে বলেছিলাম। রাজি হয়নি। বলেছিল দিল্লি পর্যন্ত পৌঁছে তবেই ফেরত আসবে।’

আরো পড়ুন ...