সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

কঙ্গোতে জাতিসঙ্ঘবিরোধী বিক্ষোভ, নিহত ৪৩

পশ্চিম আফ্রিকার দেশ কঙ্গোতে জাতিসঙ্ঘ শান্তিরক্ষা মিশনবিরোধী বিক্ষোভে অন্তত ৪৩ জন নিহত হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছে আরো ৫৬ জন।

শুক্রবার (১ সেপ্টেম্বর) এক প্রতিবেদনে রয়টার্স এই তথ্য জানিয়েছে। এর আগে বুধবার (৩০ আগস্ট) দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় শহর গোমায় সহিংস বিক্ষোভ ও এর জেরে সেনাবাহিনীর শক্তিপ্রয়োগে প্রাণহানির এ ঘটনা ঘটে।

দেশটির সরকার জানিয়েছে, বুধবার পূর্ব কঙ্গোলিজ শহর গোমায় জাতিসঙ্ঘবিরোধী হিংসাত্মক বিক্ষোভে সেনাবাহিনীর কঠোর দমনপীড়নে ৪৩ জন নিহত ও ৫৬ জন আহত হয়েছেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিক্ষোভের সময় একজন পুলিশ সদস্যের ওপর হামলার ফুটেজ সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এরপর কঙ্গোলিজ সেনাবাহিনী দমনপীড়ন শুরু করে এবং জাতিসঙ্ঘ শান্তিরক্ষা মিশন ও অন্যান্য বিদেশী সংস্থার বিরুদ্ধে আয়োজিত বিক্ষোভ জোরপূর্বক ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

কঙ্গোতে জাতিসঙ্ঘ শান্তিরক্ষা মিশনটি মনুস্কো নামে পরিচিত। জাতিসঙ্ঘের এই মিশনের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলোর সহিংসতার বিরুদ্ধে বেসামরিক নাগরিকদের রক্ষা করতে ব্যর্থ হয়েছে। মূলত বছরের পর বছর ধরে চলে আসা এই সহিংসতার কারণে বুধবার দেশটির ওই শহরে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে।

এর আগে কঙ্গোর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিল, এক পুলিশ সদস্যকে পাথর ছুঁড়ে হত্যা করা হয়েছে এবং সেনাবাহিনীর হস্তক্ষেপে ছয় বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন।

তবে বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে দেশটির সরকার বলেছে, বিক্ষোভে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৩ জনে। এছাড়া আরো ১৫৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই ঘটনায় সামরিক তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

সামাজিকমাধ্যমের ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, কঙ্গোর সেনারা একটি লরিতে বহু লাশ স্তূপাকার করে রাখছে এবং গাড়িতে করে সেগুলো নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। অবশ্য এই ফুটেজটিও যাচাই করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছে রয়টার্স। মানব জমিন

আরো পড়ুন ...