Home খেলাধূলা
Category:

খেলাধূলা

ঢাকা: নিজ বাসায় ঘটে যাওয়া দুর্ঘটনায় পা কেটে গেছে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার। রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে তাকে। মাশরাফির পায়ে ২৭টি সেলাই পড়েছে।
জানা গেছে, ঘরে থাকা একটি কাঁচের টেবিলে সঙ্গে ধাক্কা লেগে পায়ের পেছনে কেটে যায় মাশরাফির। পরিবারের সদস্যরা দ্রুতই তাকে এভারকেয়ার হাসপাতালে নিয়ে যান। তার পারিবারিক সূত্র বলেছে, ‘বাসায় কাঁচের টেবিলে ধাক্কা লেগেছিল। কাঁচ ভেঙে পায়ের পেছনের অংশে গুরুতর জখম হয়েছে। এখন তিনি এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি আছেন। পায়ে আঘাত পাওয়ার জায়গায় ২৭টি সেলাই লেগেছে। দ্রুত সুস্থতার জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন মাশরাফি।’ মানব জমিন

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: প্রায় তিন বছর ধরে ব্রেইন টিউমারে আক্রান্ত বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক ক্রিকেটার মোশাররফ হোসেন রুবেল গতকাল ১৯ এপ্রিল  মারা গেছেন ( ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাইজিউন)।

তার মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন তার সহপাঠী ও বন্ধু মোহাম্মদ জাহিদুর রহমান চৌধুরী।

ঢাকার একটি হাসপাতালে ৪০ বছর বয়সে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

দুই হাজার উনিশ সাল থেকেই জটিল এই রোগে ভুগছিলেন মোশাররফ হোসেন রুবেল।

স্ত্রী ও পাঁচ বছর বয়সী এক সন্তান রেখে গেছেন তিনি।

শিক্ষাজীবনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগে ছিলেন তিনি।

বাংলাদেশের জাতীয় ক্রিকেট দলের হয়ে পাঁচটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন রুবেল।

দুই হাজার বিশ সালে সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন তিনি, কিন্তু গত বছর আবারও নতুন করে মস্তিষ্কে টিউমার ধরা পড়ে।

গত মাসে বেশ গুরুতর অবস্থায় রুবেলকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল, চলতি মাসের ১৫ তারিখ বাসায় ফিরেছিলেন।

ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, আজ মোশাররফ হোসেন রুবেল আবারও অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়, সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

শুরুর দিকে যখন মস্তিষ্কের টিউমার ধরা পড়ে তখন সার্জারির জন্য প্রায় দেড় কোটি টাকার প্রয়োজন ছিল বলে তিনি ফ্ল্যাট বিক্রি করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

ঢাকা ও সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা চালিয়ে যেতে হয়েছে বলে সার্জারির আগেই ততদিনে এক কোটি টাকা খরচ হয়ে গিয়েছিল বলে জানান, বন্ধু জাহিদুর রহমান।

বাঁ হাতি স্পিন ও লেট অর্ডারে ব্যাটিং- দুই মিলিয়ে ঢাকার ক্রিকেটে দ্রুতই মানিয়ে নিয়েছিলেন রুবেল। সাকিব আল হাসান-আব্দুল রাজ্জাকদের পূর্বে বাংলাদেশের অন্যতম সেরা স্পিনার মোহাম্মদ রফিকের অবসরের পর জাতীয় দলে ডাক পেয়েছিলেন তিনি।

তার প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচটি ছিল ২০০৮ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে একটি ওয়ানডে সিরিজে।

কিন্তু কয়েক মাস পরেই কথিত বিদ্রোহী ক্রিকেটারদের লিগ, ইন্ডিয়ান ক্রিকেট লিগে যোগ দেয়ায় রুবেল বেশিদিন খেলতে পারেননি জাতীয় দলে। তখন আইসিএলগামী ক্রিকেটাররা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কাছে অবসরের চিঠিও দিয়েছিলেন।

২০১৬ সালে আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে দলে ডাক পেয়েছিলেন রুবেল
২০১৬ সালে আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে দলে ডাক পেয়েছিলেন রুবেল

২০০৯ সালে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পর তখন বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে ফেরেন মোশাররফ রুবেল।

২০০১-০২ মৌসুম থেকে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট খেলেছেন এই বাহাতি স্পিনার।

রুবেল ঘরোয়া ক্রিকেটে তিন ফরম্যাটেই অবদান রেখেছেন।

২০১৩ সালে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ফাইনাল ম্যাচে ম্যাচ সেরার পুরষ্কার পেয়েছিলেন।

যদিও মূলত ছিলেন বাহাতি স্পিনার কিন্তু প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে তার নামের পাশে রয়েছে ৩৩০৫ রান, সেঞ্চুরিও করেছেন দুটি, ১৬টি হাফ সেঞ্চুরি করেছেন তিনি বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে।

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে তিনি ৩৯২টি উইকেট নিয়েছিলেন।

ব্রেইন টিউমার ধরা পড়ার আগে শেষবার ২০১৯ সালে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচ খেলেছিলেন মোশাররফ রুবেল।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

আইসিসির বর্ষসেরা ক্রিকেটার হিসাবে স্বীকৃতি পেয়েছেন পাকিস্তানের মোহাম্মদ রিজওয়ান। ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার নির্বাচিত হয়েছেন পাকিস্তানের এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান।

২০২১ সালে টি-টোয়েন্টিতে ২৯টি ম্যাচের ২৬ ইনিংসে ব্যাটিং করে ৭৩.৬৬ গড়ে এক সেঞ্চুরি ও ১২ হাফ সেঞ্চুরিতে করেছেন ১ হাজার ৩২৬ রান। গত বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও ছিলেন ধারাবাহিকতার মূর্ত প্রতীক। বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচে রিজওয়ানের ৫৫ বলে ৭৯ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলার পথে বিশ্বকাপে ভারতকে প্রথমবার হারিয়েছিল পাকিস্তান।

বিশ্বকাপে শুধু ব্যাট হাতে আলো ছড়াননি, অদম্য মানসিকতার পরিচয়ও দিয়েছিলেন রিজওয়ান। সেমিফাইনালের আগে বুকে ব্যথা নিয়ে ছিলেন হাসপাতালে ভর্তি। সেই অবস্থায় তিনি ডাক্তারকে জানিয়েছিলেন, ‘আমি সেমিফাইনাল খেলতে চাই।’ শেষ পর্যন্ত খেলেছেনও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সেমিফাইনালে। দল জিততে না পারলেও রিজওয়ান করেছিলেন হাফ সেঞ্চুরি।

গত বছর রিজওয়ানের শুরুটাও ছিল দুর্দান্ত। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ঘরের মাঠে বছরের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচেই করেছিলেন সেঞ্চুরি। পরের ম্যাচে করেছিলেন ৫১। এরপর দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজেও ব্যাটে রানের ফোয়ারা ছুটিয়েছিলেন। বছরজুড়েই টি-টোয়েন্টি সংস্করণে বোলারদের ঘাম ছুটিয়েছেন রিজওয়ান। এক পঞ্জিকাবর্ষে টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ রান, হাফ সেঞ্চুরি, সবচেয়ে বেশি বল খেলা, বাউন্ডারি—সবকিছুতেই ছিলেন এক নম্বরে। দারুণ সব কীর্তি গড়ার পর টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার নির্বাচিত হয়ে সেসবের স্বীকৃতি পেলেন রিজওয়ান।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

Lommodo ligula eget dolor. Aenean massa. Cum sociis que penatibus et magnis dis parturient montes lorem, ridiculus mus. Donec quam felis, ultricies nec, pellentesque eu, pretium quis, sem. Nulla onsequat massa quis enim. Donec pede justo fringilla vel aliquet nec vulputate eget. Lorem ispum dolore siamet ipsum dolor.

Et harum quidem rerum facilis est et expedita distinctio. Nam libero tempore, cum soluta nobis est eligendi optio cumquer nihil impedit quo minus id quod maxime placeat facere.

0 comment
1 FacebookTwitterPinterestEmail

Lommodo ligula eget dolor. Aenean massa. Cum sociis que penatibus et magnis dis parturient montes lorem, ridiculus mus. Donec quam felis, ultricies nec, pellentesque eu, pretium quis, sem. Nulla onsequat massa quis enim. Donec pede justo fringilla vel aliquet nec vulputate eget. Lorem ispum dolore siamet ipsum dolor.

Et harum quidem rerum facilis est et expedita distinctio. Nam libero tempore, cum soluta nobis est eligendi optio cumquer nihil impedit quo minus id quod maxime placeat facere.

0 comment
1 FacebookTwitterPinterestEmail

Lommodo ligula eget dolor. Aenean massa. Cum sociis que penatibus et magnis dis parturient montes lorem, ridiculus mus. Donec quam felis, ultricies nec, pellentesque eu, pretium quis, sem. Nulla onsequat massa quis enim. Donec pede justo fringilla vel aliquet nec vulputate eget. Lorem ispum dolore siamet ipsum dolor.

Et harum quidem rerum facilis est et expedita distinctio. Nam libero tempore, cum soluta nobis est eligendi optio cumquer nihil impedit quo minus id quod maxime placeat facere.

0 comment
1 FacebookTwitterPinterestEmail

Lommodo ligula eget dolor. Aenean massa. Cum sociis que penatibus et magnis dis parturient montes lorem, ridiculus mus. Donec quam felis, ultricies nec, pellentesque eu, pretium quis, sem. Nulla onsequat massa quis enim. Donec pede justo fringilla vel aliquet nec vulputate eget. Lorem ispum dolore siamet ipsum dolor.

Et harum quidem rerum facilis est et expedita distinctio. Nam libero tempore, cum soluta nobis est eligendi optio cumquer nihil impedit quo minus id quod maxime placeat facere.

0 comment
1 FacebookTwitterPinterestEmail

Lommodo ligula eget dolor. Aenean massa. Cum sociis que penatibus et magnis dis parturient montes lorem, ridiculus mus. Donec quam felis, ultricies nec, pellentesque eu, pretium quis, sem. Nulla onsequat massa quis enim. Donec pede justo fringilla vel aliquet nec vulputate eget. Lorem ispum dolore siamet ipsum dolor.

Et harum quidem rerum facilis est et expedita distinctio. Nam libero tempore, cum soluta nobis est eligendi optio cumquer nihil impedit quo minus id quod maxime placeat facere.

0 comment
1 FacebookTwitterPinterestEmail

Lommodo ligula eget dolor. Aenean massa. Cum sociis que penatibus et magnis dis parturient montes lorem, ridiculus mus. Donec quam felis, ultricies nec, pellentesque eu, pretium quis, sem. Nulla onsequat massa quis enim. Donec pede justo fringilla vel aliquet nec vulputate eget. Lorem ispum dolore siamet ipsum dolor.

Et harum quidem rerum facilis est et expedita distinctio. Nam libero tempore, cum soluta nobis est eligendi optio cumquer nihil impedit quo minus id quod maxime placeat facere.

0 comment
1 FacebookTwitterPinterestEmail

Lommodo ligula eget dolor. Aenean massa. Cum sociis que penatibus et magnis dis parturient montes lorem, ridiculus mus. Donec quam felis, ultricies nec, pellentesque eu, pretium quis, sem. Nulla onsequat massa quis enim. Donec pede justo fringilla vel aliquet nec vulputate eget. Lorem ispum dolore siamet ipsum dolor.

Et harum quidem rerum facilis est et expedita distinctio. Nam libero tempore, cum soluta nobis est eligendi optio cumquer nihil impedit quo minus id quod maxime placeat facere.

0 comment
1 FacebookTwitterPinterestEmail