Home Author
Author

uadmin

ঢাকা: আলো জ্বলে ওঠল। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরু হয়ে গেল। কাতারে বিশ্বকাপ আয়োজন নিয়ে অনেক বিতর্ক থাকলেও, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মাতিয়ে দিলো তারা। দেয়া হলো ঐক্যের বার্তা, দেয়া হলো সাম্যের বার্তা। ফুটবলই যে দুনিয়াকে এক করতে পারে, সেই বার্তা বারে বারে উঠে এলো।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর মাঠে গড়ায় কাতারের ফুটবল বিশ্বকাপ। স্বাগতিক কাতার আর ইকুয়েডরের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে শুরু হয় বিশ্বকাপ আসর।

আল বায়াত স্টেডিয়ামে আয়োজিত হয়েছে বর্ণিল এ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। সেখানে শুরুতেই পারফর্ম করেছেন কাতারের আঞ্চলিক শিল্পীরা। নাচ-গান এবং ভিজুয়াল প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে তারা তুলে ধরতে চেয়েছেন উপসাগরীয় দেশটির সংস্কৃতি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরুর অনেক আগে থেকেই ভিড় জমতে শুরু করেছিল আল বায়াত স্টেডিয়ামের বাইরে। হলুদ জার্সি এবং পতাকা নিয়ে সোল্লাসে স্টেডিয়ামের দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন ইকুয়েডরের সমর্থকরা। অন্য প্রান্ত থেকে এগিয়ে আসছিলেন সাদা এবং সবুজ জার্সি পরিহিত কাতার সমর্থকরা। নাচগান, ঢাকঢোলের শব্দের মাধ্যমে পরিষ্কার হয়ে যায়, বিশ্বকাপ শুরু হতে আর দেরি নেই।

নির্ধারিত সময়ের কিছুটা পরেই শুরু হল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। প্রথমেই দেখা যায় কাতারের শাসক শেখ মহম্মদ বিন রশিদ আল-মাখতুম। প্রথমে গানের অনুষ্ঠান হয়। তার পরেই বিশ্বকাপে ঐক্যের বার্তা শোনাতে শোনাতে হাজির হন হলিউডি অভিনেতা মর্গ্যান ফ্রিম্যান। তার সাথে মঞ্চে প্রবেশ করে কাতারের বিশেষভাবে সক্ষম ঘানেম আল-মুফতাহ।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া বাংলাদেশের কোনো নির্বাচন হবে না এবং এই তত্ত্বাবধায়ক সরকারের এখন যারা বিরোধিতা করবে তারা গণশত্রু হিসেবে ধিকৃত হবে এবং তাদের চিহ্নিত করা হবে গণশত্রু হিসেবে।

শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে সিলেট সরকারি আলিয়া মাদরাসা মাঠে বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

দেশব্যাপী বিদ্যুতের নজিরবিহীন লোডশেডিং, জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধি, নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি, গণপরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধি, পুলিশের গুলিতে দেশব্যাপী বিএনপি নেতাকর্মীদের হত্যার প্রতিবাদ, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে দেশব্যাপী বিভাগীয় গণসমাবেশের অংশ হিসেবে সিলেটে এ গণসমাবেশ করে বিএনপি।

মির্জা ফখরুল বলেন, খালেদা জিয়া সংবিধানে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের যে বিধান সন্নিবেশিত করেছিলেন সেই তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া কোনো নির্বাচন হবে না।

তিনি বলেন, ‘সরকার লম্বা লম্বা কথা বলে। তারা বলে সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে। কোন সংবিধান? যে সংবিধান কাটাছেঁড়া করেছো। তত্ত্বাবধায়ক সরকার বাতিল করে দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করেছো। সে সংবিধান আমরা মানি না।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আমাদের দফা এক, দাবি এক- এ সরকারের পদত্যাগ। শেখ হাসিনার পদত্যাগ। আর এর ফয়সালা হবে রাজপথে। রাজপথেই সরকারকে পরাজিত করে জনগণের সরকার করবো।’

‘অবিলম্বে শেখ হাসিনাকে পদত্যাগ করতে হবে। সংসদ বিলুপ্ত করতে হবে এবং মধ্যবর্তী বা নির্বাচনকালীন সময়ের জন্য কেয়ারটেকার সরকার করতে হবে,’ বলেন তিনি।

তিনি বলেন, বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের বিচার হতে জনতার আদালতে এবং এ বিচার হবে ভোট চুরি ও ডাকাতির জন্য।

সিলেট অঞ্চলের বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলীর গুমের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, তার দলের শত শত নেতাকর্মী খুন ও গুমের শিকার হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘কিন্তু এখন মানুষ জেগে উঠেছে। আর হুমকি দিয়ে লাভ হবে না। দাবি আদায় না করে মানুষ আর ঘরে ফিরে যাবে না। আমাদের লক্ষ্য একটাই- ভোটের অধিকার ফিরিয়ে নেয়া।’

তিনি সব রাজনৈতিক দলকে এ দাবি আদায়ে রাজপথে নেমে আসার আহ্বান জানান এবং বলেন, তারা সবাই মিলেই লড়াইয়ের মাধ্যমে সরকারকে পরাজিত করবেন।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি কাজে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করতে কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলর মো. আবদুল হামিদ।

শনিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫৩তম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে সভাপতির ভাষণে তিনি এ নির্দেশনা দেন। রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি কাজে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করতে হবে।’ তিনি শিক্ষকসহ যেকোনো নিয়োগের ক্ষেত্রে মেধা ও যোগ্যতাকে প্রাধান্য দেওয়ার জোর তাগিদ দেন।

আবদুল হামিদ বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের জন্য পড়াশোনা ও গবেষণার উপযুক্ত পরিবেশ গড়ে তুলুন….যাতে তাদের এজন্য বিদেশে পাড়ি দিতে না হয়।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে আয়োজিত এ সমাবর্তন অনুষ্ঠানে শিক্ষকদেরকে তরুণ গবেষকদের মেধা ও উদ্ভাবনী শক্তিকে কাজে লাগিয়ে দেশের মানুষের কল্যাণে এগিয়ে আসারও আহ্বান জানান তিনি।

রাষ্ট্রপতি আশা করেন, উপাচার্যের নেতৃত্বে ও ছাত্র শিক্ষকসহ সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগিতায় প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয় গবেষণা ও উচ্চ শিক্ষার প্রাণকেন্দ্রে পরিণত হবে।

চ্যান্সেলর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, ‘বিভিন্ন বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে সমাজে শিক্ষকদের সম্মানের জায়গা ক্রমেই সংকুচিত হয়ে আসছে। কিছু সংখ্যক অসাধু লোকের কর্মকাণ্ডের জন্য গোটা শিক্ষক সমাজের মর্যাদা যেন ক্ষুণ্ন না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।’

রাষ্ট্রপতি বলেন, কতিপয় শিক্ষক বিশ্ববিদ্যালয়ের চাকরিকে ঐচ্ছিক দায়িত্ব মনে করেন। বৈকালিক কোর্স বা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাশ নেওয়াকেই তারা অগ্রাধিকার দিয়ে থাকেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা সবাই কৃতী ও সেরা ছাত্র ছিলেন। আমার বিশ্বাস আপনারা যে কোনো ক্ষেত্রে সাফল্যের স্বাক্ষর রাখতে সক্ষম হবেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কর্মঠ আর যোগ্য নেতৃত্বে কিছুদিনের মধ্যেই ডিজিটাল বাংলাদেশ হবে ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ উল্লেখ করে রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘কিন্তু এই ডিজিটাল যুগেও প্রায়ই অভিযোগ শোনা যায় যে, ভর্তি প্রক্রিয়া থেকে শুরু করে সার্টিফিকেট উত্তোলন পর্যন্ত বিভিন্ন স্তরে ছাত্রছাত্রীরা অবহেলা আর হয়রানির মুখোমুখি হন।’

রাষ্ট্রপ্রধান শিক্ষার্থীদের কাঙ্ক্ষিত সেবা দিতে ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টার, কাউন্সেলিং অ্যান্ড সাপোর্ট সেন্টার এবং ক্যারিয়ার প্ল্যানিং ইউনিট চালু করতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি সেশনজট কমানোর উদ্যোগ হিসেবে লস রিকভারি প্ল্যান, গবেষণা-প্রকাশনা মেলা আয়োজন এবং স্টুডেন্ট প্রমোশন অ্যান্ড সাপোর্ট ইউনিট চালু করায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান।

শুধুমাত্র উচ্চশিক্ষার একটি প্রতিষ্ঠান নয়, দেশের নেতৃত্বের প্রতীক এবং ভাষা আন্দোলন, মুক্তিসংগ্রাম, মুক্তিযুদ্ধসহ বাঙালির প্রতিটি আন্দোলনের নিউক্লিয়াস হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে অভিহিত করেন রাষ্ট্রপ্রধান।

আবদুল হামিদ বলেন, এক সময়ের প্রাচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে জাতির প্রত্যাশা অনেক। আর তা পূরণে বিশ্ববিদ্যালয়কে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে। রাষ্ট্রপতি মনে করিয়ে দেন যে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান থেকে শুরু করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ দেশকে নেতৃত্ব প্রদানকারী অনেক নেতাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষায় আলোকিত হয়েছেন।

তিনি স্নাতক ডিগ্রিধারীদের অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, গ্র্যাজুয়েটরা যেন সমাবর্তন আর সার্টিফিকেটেই সীমাবদ্ধ না থাকেন সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। দেশ ও জনগণের কল্যাণে সর্বদা নিজেকে নিয়োজিত রাখতে হবে। সত্য ও ন্যায়ভিত্তিক সমাজ গঠনে স্নাতক ডিগ্রিধারীরা প্রত্যেকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে অধিকতর কার্যকর অবদান রাখবেন বলে রাষ্ট্রপতি আশা প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ এবং উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এএসএম মাকসুদ কামাল বক্তব্য দেন।

মন্ত্রিপরিষদ সদস্য, সংসদ সদস্য, বিভিন্ন কূটনৈতিক মিশনের প্রতিনিধি, ঢাবির সিনেট ও সিন্ডিকেট সদস্য, শিক্ষক, অতিথি এবং বিভিন্ন বিষয়ে ডিগ্রিপ্রাপ্ত ছাত্র-ছাত্রী ও গবেষকরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: ভারতকে ১০ উইকেটে হারিয়ে বিশ্বকাপের ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে ইংল্যান্ড। ওপেনার আলেক্স হেলস ও জস বাটলার মিলিয়েই উড়িয়ে দিয়েছেন ভারতকে। রেকর্ড ১৭০ রানের জুটি গড়ে ইংল্যান্ডকে তৃতীয়বারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে পৌঁছে দিয়েছেন তারা। ১৬৯ রানের লক্ষ্যটা ২৪ বল হাতে রেখে টপকে যায় ইংল্যান্ড। ১৩ই নভেম্বর ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ পাকিস্তান।
অধিনায়ক বাটলার ৪৯ বলে ৯ চার ও ৩ ছক্কায় করেছেন ৮০ রান। আর হেলসের ব্যাট থেকে এসেছে  ৪৭ বলে ৪ চার ও ৭ ছক্কায় ৮৬ রান।

অ্যাডিলেডে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে হার্দিক পান্ডিয়ার ঝড়ো ইনিংস ও বিরাট কোহলির ফিফটিতে ৬ উইকেটে ১৬৮ রান তোলে ভারত।
শুরুটা অবশ্য ভালো হয়নি ভারতের। দলীয় ৯ রানেই প্রথম উইকেট হারায় রোহিত শর্মারা। ৫ রানে ক্রিস ওকসের উইকেটে পরিণত হন কেএল রাহুল। আরেক ওপেনার রোহিত শর্মা ২৮ বলে ২৭ রান করেন। সুবিধা করতে পারেননি সূর্য কুমার যাদব।

১০ বলে ১৪ রান করে ফেরেন ভারতীয় এই হার্ডহিটার। এরপর বিরাট কোহলির সঙ্গে ৬১ রানের জুটি গড়েন হার্দিক পান্ডিয়া। কোহলি ৪০ বলে ৪ চার ও ১ ছক্কায় ৫০ রান করেন। পান্ডিয়া ৩৩ বলের ঝড়ো ইনিংসে ৬৩ রান করেন। ঝড়ো ইনিংসটি ৪  চার ও ৫ ছক্কায় সাজান ভারতীয় অলরাউন্ডার। ইংল্যান্ডের ক্রিস জর্ডান ৪ ওভারে ৪৩ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: ফাইনালে খেলবে পাকিস্তান। টি২০ বিশ্বকাপের সেমি ফাইনালে পাকিস্তান হাতে ৫ বল বাকী রেখে ৭ উইকেটে হারালো নিউজিল্যান্ডকে।

বুধবার সিডনিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে কিউইদের বিপক্ষে ৯ উইকেটের জয় পায় বাবর আজমের দল।  সিডনিতে টসে জিতে নিউজিল্যান্ডের ইনিংস থামে ১৫২/৪-এ। জবাবে ৫ বল বাকি রেখে জয়ের বন্দরে পৌঁছে পাকিস্তান। ম্যাচে জোড়া ফিফটি হাঁকান দুই পাকিস্তানি ওপেনার মোহাম্মদ রিজওয়ান ও বাবর আজম। ৪৩ বলে ৫৭ রানের ইনিংস খেলেন রিজওয়ান। অন্যদিকে এবারের বিশ্বকাপে প্রথম অর্ধশতকের দেখা পেলেন বাবর আজম। বুধবার ৪২ বলে ৫৩ রান করেন পাকিস্তান অধিনায়ক। আর মোহাম্মদ হারিস করেন ২৫ বলে ৩০ রান। বিশ্বকাপে শুরুর চার ম্যাচেই এক অঙ্কের রানে (০, ৪, ৪, ৬) উইকেট খোয়ান বাবর।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) থেকে বাংলাদেশ যেভাবে ঋণ চেয়েছিল সেভাবেই পাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। বলেছেন, আমরা যেভাবে ঋণ চেয়েছিলাম ঠিক সেভাবেই পেতে যাচ্ছি। আগামী ৩ মাসের মধ্যে এই ঋণের বিষয়ে সব প্রক্রিয়া শেষ হবে।

আজ বুধবার আইএমএফের সঙ্গে বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে অর্থমন্ত্রী এ কথা বলেন।  অর্থমন্ত্রী বলেন, আমরা যে সাড়ে ৪ বিলিয়ন ডলার চেয়েছি সেটা মোট ৭ কিস্তিতে পাওয়া যাবে।

সাড়ে ৪ বিলিয়ন ডলার ঋণের মধ্যে বাংলাদেশ ব্যালেন্স অব পেমেন্ট ও বাজেট সহায়তার জন্য দেড় বিলিয়ন করে ৩ বিলিয়ন ডলার চেয়েছে। বাকি দেড় বিলিয়ন চাওয়া হয়েছে আইএমএফের নতুন উদ্যোগ, সহনশীলতা ও টেকসই সহায়তা তহবিল (ট্রাস্ট) থেকে।

এই ঋণের জন্য আইএমএফ বাংলাদেশকে বেশ কিছু শর্ত দিয়েছে। আইএমএফ যেসব সংস্কার কার্যক্রমকে প্রাধান্য দেওয়ার সুপারিশ করেছে সেগুলো হলো, করপোরেট সুশাসন আরও বলিষ্ঠ করা, বর্তমান অবকাঠামোর ওপর তদারকি আরও কঠোর করা ও এর প্রয়োগ নিশ্চিত করা, ঋণদাতাদের অধিকার প্রয়োগের জন্য আরও বলিষ্ঠ সহযোগিতা ও ঋণগ্রহীতাদের ঋণ পরিশোধের জন্য প্রণোদনা নিশ্চিতের জন্য আইনি ব্যবস্থার যথোপযুক্ত সংস্কার।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: রংপুর সিটি করপোরেশন (রসিক) নির্বাচনের বিস্তারিত তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। সোমবার (৭ নভেম্বর) নির্বাচন কমিশনের সচিব মো. জাহাঙ্গীর আলম এ তফসিল ঘোষণা করেন। কমিশন আগেই জানিয়েছে, আগামী ২৭ ডিসেম্বর রংপুরের ভোট হবে।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী  মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ২৯ নভেম্বর। প্রার্থিতা বাছাই ১ ডিসেম্বর। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৮ ডিসেম্বর।

রংপুর সিটি নির্বাচন ইভিএমে অনুষ্ঠিত হবে। ভোটগ্রহণ শুরু হবে সকাল ৮টায় এবং শেষ হবে বিকাল সাড়ে ৪টায়। নির্বাচন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক আব্দুল বাতেন এ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।

রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তফসিলরংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তফসিল

এদিকে ২৯ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করে পাঁচটি পৌর নির্বাচনেরও তফসিল ঘোষণা করেছে ইসি।

পৌরসভাগুলো হচ্ছে রাজশীর বাঘা, দিনাজপুরের বিরল, পঞ্চগড়ের বোদা, ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা ও নাটোরের বনপাড়া।

তফসিল অনুযায়ী পৌরসভাগুলোর মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ সময়ে ১ ডিসেম্বর,  প্রার্থিতা বাছাই ৩ ডিসেম্বর এবং মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার ১০ ডিসেম্বর।

একই তফসিলে ৪৮টি ইউনিয়ন পরিষদের সাধারণ নির্বাচন এবং ১৮টি ইউনিয়ন পরিষদে বিভিন্ন পদে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদের ভোট  ব্যালটে গ্রহণ করা হবে।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হতে চলেছে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচন। এতে কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের ৪৩৫ আসন এবং উচ্চকক্ষ সিনেটের ৩৫ আসনের জন্য ভোট দেবেন আমেরিকানরা। প্রেসিডেন্টের মেয়াদ যখন একেবারে অর্ধেক হয়ে আসে তখনই দেশটিতে এই মধ্যবর্তী নির্বাচন আয়োজিত হয়।

এই নির্বাচনেই নির্ধারিত হয়, ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট আগামী দুই বছর কতখানি ক্ষমতাধারী থাকবেন। নিম্নকক্ষ ও উচ্চকক্ষের নিয়ন্ত্রণ হারালে প্রেসিডেন্ট ‘লেম-ডাকে’ পরিণত হন। প্রেসিডেন্ট বাইডেনের ডেমোক্রেট দল যথেষ্ট ভোট না পেলে কংগ্রেসের দুই কক্ষেরই পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ হারাতে পারে। সেক্ষেত্রে উভয় কক্ষই বিরোধী রিপাবলিকান দলের নিয়ন্ত্রণে চলে যাওয়ার ঝুঁকি আছে। তেমন হলে প্রেসিডেন্ট বাইডেনের জন্য কোনও কাজ করা খুব কঠিন হয়ে পড়বে। বিশেষ করে নতুন কোনও আইন সহজে পাস করতে গেলে বাইডেনের জন্য কংগ্রেসের দুই কক্ষেরই নিয়ন্ত্রণ পাওয়া জরুরি।

এখন পর্যন্ত মধ্যবর্তী নির্বাচনে রিপাবলিকান এবং ডেমোক্রেট দলের সমর্থন প্রায় সমানই মনে হচ্ছে। যদিও একেবারে শেষ দিকের জরিপগুলো বলছে, রিপাবলিকানরা হয়ত পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ এবং উচ্চকক্ষের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারবে। ২০১৮ সালে তারা ডেমোক্রেটদের কাছে এর নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছিল।

ফাইভথার্টিএইট-এর জরিপ বলছে, হাউজ অব রিপ্রেজেন্টিভে রিপাবলিকানরা ২১৫ থেকে ২৪৮ আসন পাবে। এই সংস্থাটি তার নির্বাচন নিয়ে জরিপের জন্য পরিচিত।

তারা বলছে, ডেমোক্রেটদের প্রধান টার্গেট রিপাবলিকানদের কাছ থেকে পেনসিলভানিয়া নিয়ে নেয়া। অপরদিকে রিপাবলিকানরা ডেমোক্রেটদের থেকে জর্জিয়া ও নেভাডা নিয়ে নেয়ার লক্ষ্য হাতে নিয়েছে। যদি ডেমোক্রেটরা সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায় তাহলে আগামী দুই বছর প্রেসিডেন্টের পক্ষে তেমন কোনো আইনই পাশ করা সম্ভব হবে না। ভোটাররা ৫০ প্রদেশের ৩৬টিতে গভর্নর নির্বাচিত করতেও ভোট দেবেন। এরমধ্যে ২০টিতে ক্ষমতায় আছে রিপাবলিকানরা এবং ১৬টিতে ক্ষমতায় আছে ডেমোক্রেটরা। এই গভর্নর নির্বাচনের প্রভাব পড়বে ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনেও।
ওয়াশিংটনের পিউ রিসার্চ সেন্টার জানিয়েছে, এবারের নির্বাচনে ভোটারদের কাছে সবথেকে গুরুত্ব পাচ্ছে অর্থনীতি। ৭৯ শতাংশ ভোটারই বলেছেন, এবার তারা কাকে ভোট দেবে তা নির্ধারণে অর্থনীতিকেই প্রাধান্য দিচ্ছেন তারা। সর্বশেষ মাসগুলোতে অর্থনীতি নিয়ে মার্কিনিদের চিন্তাভাবনা ছিল বেশ নেতিবাচক। রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে পশ্চিমা দেশগুলোর নিজের অর্থনীতিই চাপে পড়েছে। জ্বালানী এবং খাদ্যের দাম বৃদ্ধি এবং সার্বিক মূল্যস্ফীতির বিষয়টিকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখছেন মার্কিন ভোটাররা।

তবে অনেকের কাছে বিশ্বে গণতন্ত্রের ভবিষ্যতও একটি বিবেচ্য বিষয়। আবার ৬০ শতাংশ তার ভোটের জন্য শিক্ষা, স্বাস্থ্য, জ্বালানী নীতি এবং সহিংস অপরাধের বিষয়টিকে গুরুত্ব দিচ্ছেন। অস্ত্র আইন ও গর্ভপাতও গুরুত্ব পাচ্ছে ৫০ শতাংশের কাছে। ডেমোক্রেট এবং রিপাবলিকান উভয় দলের জন্যই ভোট আদায়ে পেনসিলভেনিয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ প্রদেশ হয়ে উঠেছে। এ প্রদেশে সিনেট নির্বাচনে খুব কম ব্যবধানে মুখোমুখি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন দুই প্রার্থী- ডেমোক্র্যাট জন ফেটারম্যান এবং রিপাবলিকান মেহমেত ওজ। তাদেরকে জিতিয়ে আনতেই সেখানে প্রচার চালাতে মাঠে নেমেছেন স্ব স্ব দলের তিন নেতা- ট্রাম্প, ওবামা এবং বাইডেন।

যদিও ট্রাম্পকে দেখা গেছে নিজের রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নিয়েও কথা বলতে। পেনসিলভেনিয়াতে তিনি জন সমাবেশে সমর্থকদের জানান, ২০২৪ সালের নির্বাচনে ‘খুব সম্ভবত’ তিনি আবারও প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করবেন।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: সিলেট জেলা বিএনপি নেতা আফম কামালকে কুপিয়ে খুন করা হয়েছে। রাত ৯ টার দিকে সিলেট নগরীর আম্বরখানা বড় বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত আফম কামাল সিলেটের পরিচিত মুখ। তিনি জেলা বিএনপির সাবেক স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ও ল’কলেজের সাবেক জিএস।

পুলিশ জানায়- আফম কামাল রোববার রাত ৯ টার দিকে নগরীর আম্বরখানা বড় বাজার এলাকা দিয়ে প্রাইভেট কার যোগে যাচ্ছিলেন। এ সময় তাকে গাড়ি থেকে নামিয়ে এলোপাতাড়ি কুপায় সন্ত্রাসীরা। হামলায় গুরুতর আহত আফম কামালকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

আম্বরখানা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মফিজুর রহমান মানবজমিনকে জানিয়েছেন- এ ঘটনার পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে হামলাকারী দলের প্রধান ইশতিয়াক আহমদ রাজুকে নগরের চৌকীদেখি এলাকার নিজ বাসার সামন থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সে এলাকার চিহিৃত সন্ত্রাসী ও ছিনতাইকারী। দু’দিন আগে তার নেতৃত্বে সাংবাদিক দিপু সিদ্দিীকির ভাইয়ের উপর হামলা হয়েছিল।

সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এমরান আহমদ চৌধুরী জানিয়েছেন- কি কারণে হামলা হয়েছে আমরা জানি না। লাশ ওসমানীতে নিয়ে আসার পর আমরা এসেছি। তিনি বলেন- এ ঘটনা মেনে নেওয়া যায় না।

আফম কামাল সিলেট বিএনপির পরিচিত মুখ। তার মৃত্যুতে বিএনপি পরিবারে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তিনি অবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তি দাবি করেন।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে তারেক রহমান ও তার স্ত্রী জোবায়দা রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ মো: আছাদুজ্জামানের আদালত তাদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগপত্র আমলে নিয়ে এ আদেশ দেন। সেইসথে এ বিষয়ে পরবর্তী শুনানির জন্য ৫ জানুয়ারি দিন ধার্য করেছেন।

দুর্নীতি দমন দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল এসব তথ্য জানান।

এর আগে চলতি বছরের ২৬ জুন হাইকোর্ট তারেক ও জোবায়দাকে ‘পলাতক’ ঘোষণা করে চার কোটি ৮২ লাখ টাকার দুর্নীতি মামলা ও তার প্রক্রিয়ার বৈধতা নিয়ে করা পৃথক রিট আবেদন খারিজ করে দেন আদালত।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ঘোষিত আয়ের বাইরে চার কোটি ৮১ লাখ ৫৩ হাজার ৫৬১ টাকার মালিক হওয়া এবং সম্পদের তথ্য গোপন ও জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ২০০৭ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর রাজধানীর কাফরুল থানায় এ মামলা করে দুদক। মামলায় তারেক রহমান, জোবায়দা রহমান ও তার মা অর্থাৎ তারেক রহমানের শাশুড়ি ইকবাল মান্দ বানুকে আসামি করা হয়।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail