Home Archives
Daily Archives

March 8, 2022

ঢাকা: কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং এলাকার ইরানী পাহাড় সংলগ্ন এলাকায় ৫ নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ফের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার (৮ মার্চ) দুপুর ৩ টার দিকে ক্যাম্পের ‘ডি’ ব্লকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ৪টি ইউনিট।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উখিয়া স্টেশনের কর্মকর্তা মো. এমদাদুল হক।

তিনি বলেন, উখিয়ার বালুখালী এলাকার ৫ নম্বর ক্যাম্পে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট কাজ করছে।

আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন-১৪ (এপিবিএন) এর অধিনায়ক পুলিশ সুপার নাইমুল হক বলেন, ক্যাম্পে আগুন লাগার খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আমাদের লোকজন কাজ করছে। পাশাপাশি ফায়ার সার্ভিসও আগুন নিয়ন্ত্রণের কাজ করছে।

বালুখালী ক্যাম্পের বাসিন্দা মো. সাইফুল জানান, তাদের ক্যাম্পে একটি ঝুপড়ি ঘরে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। বাতাস থাকায় দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ছে। আমরা সবাই মিলে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছি। তবে আগুনের তীব্রতা অনেক বেশি।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: রাশিয়ার হামলার জেরে ইউক্রেন ছেড়েছে ২০ লাখের বেশি মানুষ। জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক হাইকমিশনার ফিলিপো গ্রান্ডি যুক্তরাজ্যের গণমাধ্যম বিবিসিকে এই তথ্য জানিয়েছে।

ইউক্রেনে হামলা শুরুর পর থেকে দলে দলে মানুষ ইউক্রেন ছেড়ে পালাচ্ছে। জাতিসংঘের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর অল্প সময়ের ব্যবধানে এত শরণার্থীর ঢল এর আগে দেখেনি ইউরোপ।

এর আগে গ্রান্ডি বলেছিলেন, রুশ হামলা শুরুর পর প্রথম দফায় যারা ইউক্রেন ছেড়েছিল, তাদের সঙ্গে ‘কিছু সম্পদ ছিল’। অনেকে গাড়ি নিয়ে ইউক্রেন ছেড়েছে এবং তাদের অনেকে সঙ্গে ইউরোপে অন্য দেশগুলোয় অবস্থানরত অনেকের যোগাযোগ ছিল। ফলে তারা তাদের পরিবার, বন্ধু, তাদের পরিচিতজনদের কাছে যেতে পেরেছে। তবে তিনি সতর্ক করে এ-ও বলেছেন, কিন্তু এই সংঘাত যদি দীর্ঘদিন ধরে চলে, তবে যাদের সম্পদের পরিমাণ কম এবং যোগাযোগ রয়েছে অল্পবিস্তর, তারাও বাধ্য হবে ইউক্রেন ছাড়তে।

বার্তা সংস্থা এএফপিকে গ্রান্ডি বলেন, শরণার্থীর এই ঢল মোকাবিলায় ইউরোপীয়দের পরিস্থিতি জটিলাকার ধারণ করবে। পরিস্থিতি সামাল দিতে ইউক্রেনীয়দের সঙ্গে সব ইউরোপীয়কে আরও বেশি একাত্মতা প্রকাশ করতে হবে মন্তব্য করেছেন তিনি।

এই পরিস্থিতির সঙ্গে বসনিয়া ও কসোভো যুদ্ধের তুলনা করেছেন গ্রান্ডি। তিনি বলেন, যুদ্ধের সময় এই দুই দেশ ও অঞ্চলের মানুষ গণহারে ওই সব এলাকা ছেড়েছিল। ২০ থেকে ৩০ লাখ মানুষ ওই এলাকা ছেড়েছিল। কিন্তু এসব মানুষ প্রায় ৮ বছরে ওই এলাকা ছেড়েছিল।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail

ঢাকা: রাশিয়া বলেছে, পশ্চিমা দেশগুলো যদি রাশিয়ার তেলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে, তাহলে তারা ইউরোপে গ্যাসের সরবরাহ বন্ধ করে দেবে।

রাশিয়ার উপ-প্রধানমন্ত্রী আলেকজান্ডার নোভক সোমবার বলেছেন, এ ধরণের সিদ্ধান্ত সারা বিশ্বের জ্বালানি সরবরাহে ভয়াবহ পরিণতি ডেকে আনবে। তখন তেলের দাম ব্যারেল প্রতি ৩০০ ডলার ছাড়িয়ে যেতে পারে।

ইউক্রেনে রাশিয়া হামলা করার কারণে শাস্তি দেয়ার জন্য রাশিয়ান তেলের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়ার কথা বিবেচনা করছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে এ ধরনের পরিকল্পনা সোমবার প্রত্যাখ্যান করেছে জার্মানি ও নেদারল্যান্ডস।

ইউরোপের মোট চাহিদার ৪০ শতাংশ গ্যাস আর ৩০ শতাংশ তেল রাশিয়া থেকে আসে। এই সরবরাহ বন্ধ হলে খুব সহজ কোন বিকল্পও নেই।

মি. নোভক বলেছেন, পাল্টা জবাব দেয়ার অধিকার রাশিয়ার আছে।

0 comment
0 FacebookTwitterPinterestEmail